1. admin@admin.com : admin :
  2. info@bartabazaronline.com : বার্তা বাজার : বার্তা বাজার
  3. talukdermahabub1984@gmail.com : Mahabub Talukder : Mahabub Talukder
  4. sahonsrabon3@gmail.com : Sahon Srabon : Sahon Srabon
জমি বিক্রির নামে প্রতারণা : ইউপি মেম্বার কারাগারে - Barta Bazar Online-বার্তা বাজার অনলাইন
৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ| ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ| গ্রীষ্মকাল| বৃহস্পতিবার| বিকাল ৪:২৫|

জমি বিক্রির নামে প্রতারণা : ইউপি মেম্বার কারাগারে

গোসাইরহাট উপজেলা প্রতিনিধি
  • Update Time : রবিবার, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২৪,
  • 124 Time View

গোসাইরহাট উপজেলা প্রতিনিধি:

প্রতারণা মামলার প্রধান আসামি ইউপি সদস্য হারুন গাজী নামে একজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে গোসাইরহাট থানা পুলিশ। ৮ ফেব্রুয়ারী বুধবার তাকে শরীয়তপুর জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে জানা যায়।

এর আগে একই অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় সেই সময় জমি বুঝিয়ে দিবে এই মর্মে মুছলেকা দিয়ে আসেন। অভিযুক্ত হারুন গাজী কুচাইপট্রি ইউনিয়নের মৃত ইউনুস গাজীর ছেলে এবং কুচাইপট্রি ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার।

মামলার বাদী শরীয়তপুর জেলার গোসাইরইাট উপজেলার কুচাইপট্রি ইউনিয়নের বিষকাঠালি এলাকার আজিজ চৌধুরী গত বছর ২৬ /২০২২ আমলি আদালতে বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। তিনি অভিযোগ করেন, উপজেলার রশিদ গাজী ও হারুন গাজীর কাছে তাঁদের ২০২ শতাংশ জমি কেনার জন্য ৪০ লক্ষ্য টাকা প্রদান ভিত্তিতে জমি রেজিস্ট্রি হয়, দলিলে যেসব দাগে জমি দেয়া হয়েছে ঐসব দাগে তার কোনো জমি নেই। কিন্তু ঐ দাগে আরো জমিতে বিভিন্ন লোকজনের কাছে বিক্রি করে দেয় হারুন গাজী।

মামলা সুত্রে জান যায়, ৪০০ও ৪০৩ নম্বর দাগে জমি নাই, এসময় হারুন গাজীর নামের জমি আজিজকে রেজিস্ট্রী করে দেয়ার জন্য স্থানীয় শালিসগণ সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু প্রতারক হারুন গাজী গত ৭-১২-২০২২ তারিখে গোসাইরহাট সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে ৪৪৮৩/২০২২ দলিল মূলে সাবেক ১৫১ হাল ৯০ নম্বর দাগ পশ্চিম কাঠালী মৌজার বি. আর. এস. ৫৪নং খতিয়ানের নামজারি ২৭৪ ও ২৭৬ নম্বর খতিয়া নেই ২৭৭ ও ২৭৮ নম্বর জমায় বি.আর.এস.চারশত নং দাগের নাল জমি ২০০২ শতাংশ হইতে ১৬ শতাংশ এবং বি.আর.এস. ৪০৩ নম্বর দাগের বাড়ি শ্রেণীর ১৮ শতাংশ হইতে ১৬.৫০ শতাংশ এবং ভূমি দলিল রেজিস্ট্রি করিয়া দিবে এই মর্মে ওই ভুক্তভোগী মামলা তুলে নেয় মামলা তুলিয়া নেওয়ার পরে ঐ দলিল হতে স্থানীয় ভূমি অফিসে মিউটেশন করতে গেলে জানা যায় মোহাম্মদ হারুন গাজী যে দলিল তার পূর্বেই বিআরএস ৪০০ নং দাগের নাল ২০২ শতাংশ সম্পূর্ণ ভূমি বিভিন্ন লোকজনের নিকট বিক্রি করিয়ে দিয়েছে যাহা তাকে বুঝতে দেয় নাই ভুক্তভোগীরা এসব বিষয়ে জানতে চাইলে তাদেরকে হুমকি হামলা মামলার ভয়-ভীতি দেখায় আসামি হারুন গাজী।

জমি নগদ টাকায় ক্রয় করা ছয়টি পরিবার রয়েছেন অজানা আতঙ্কে, জমির টাকা নিয়েও জমি বুঝিয়ে দিচ্ছেন না। ভোক্তভুগী আমেনা খাতুন (৬০) সুমন শনি (৬০) জাবেদ আলি বেপারী (৭০) বাদশা সরদার (৪০) বলেন, আমরা নদী ভাঙ্গন কবলীত হয়ে তার কাছ থেকে নগন টাকায় জমি ক্রয় করি। হারুন গাজী একজন মেম্বার এই ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে আমাদের কাছ থেকে প্রায় ৪০ লক্ষ্য টাকা নিয়েছে এবং জমি দলিল হওয়ার আগেই বেশিরভাগ টাকা নিয়ে যায়। আমাদের দলিলের জমি লিখে দিলেও সরজমিনে তার সেই পরিমান জমি নাই আবার একই জমি একাধিক লোকদের কাছে বিক্রি করেছে, আমরা জমি বুঝাইয়া দিতে বললে আমাদের বলে জমি যা আছে তাই, আবার টাকা ফেরত চাইতে গেলে হুমকি দমকি দিয়ে থাকে, এজন্য আমরা খুবই অসুবিধায় আছি।

স্বাক্ষী প্রতিবেশী সত্তার সরদার (৬৫) বলেন, জমি দলিল করে দিলেও জমি বুঝিয়ে দিচ্ছেন না হারুন গাজী, এইসব নিয়ে প্রায় সময়েই ঝগড়া বিবাদ করতে দেখা যায়।

এবিষয় কুচাইপট্রি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বি.এম নাসির উদ্দিন স্বপন বলেন, দলিল দিয়ে জমি বুঝিয়ে না দেয়ার বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়ভাবে মিমাংশার জন্য একাধিকবার শালিশগণ বসেও সমাধান করা যায়নি আমরা পূনঃরায় এটি সমাধানের চেস্টা করতেছি।

শেয়ার করুন :

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

© All rights reserved ©

2023 Barta Bazar Online